লোহিত ও ভূমধ্যসাগরে চারটি জাহাজে হামলার দাবি হুথিদের

প্রকাশিত: ৪:২৩ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

লোহিত সাগরে একটি লাইবেরিয়া-পতাকাবাহী জাহাজে হামলার দায় স্বীকার করেছে ইয়েমেনের সশস্ত্র গোষ্ঠী হুথি। শুক্রবার (২৮ জুন) একটি টেলিভিশন বিবৃতিতে হুথি সামরিক মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারি দায় স্বীকার করেন। একটি সামুদ্রিক সংস্থা বলেছে, জাহাজটিকে লক্ষ্য করে পাঁচটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছিল হুথিরা। এছাড়া, ভূমধ্যসাগরে ২টি জাহাজসহ আরও ৩টি জাহাজকে লক্ষ্যবস্তু করেছে হুথিরা। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই কথা বলেছে।

হুথিরা বলেছে, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের মধ্যকার যুদ্ধে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে বাণিজ্যিক জাহাজকে লক্ষ্যবস্তু করছে।

ইয়াহিয়া সারি বলেছেন, গোষ্ঠীটি তেলবাহী ট্যাংকার ডেলোনিক্সে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে এবং সেটি ‘সরাসরি আঘাত’ করেছে।

ইউনাইটেড কিংডম মেরিটাইম ট্রেড অপারেশনস (ইউকেএমটিও) এর আগের বলেছিল, জাহাজটিকে ইয়েমেনি বন্দর হোদেইদাহ থেকে ১৫০ নটিক্যাল মাইল (১৭২ মাইল) উত্তর-পশ্চিমে লক্ষ্যবস্তু করা হয়। তবে জাহাজটিতে কোন ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। সেটি উত্তর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

সারি আরও বলেছেন, লোহিত সাগরে আইওনিস জাহাজের পাশাপাশি ওয়ালের তেলবাহী ট্যাংকার এবং ভূমধ্যসাগরে জোহানেস মের্স্ক জাহাজে হামলা করেছিল হুথিরা।

এই অঞ্চলে হুথিদের হামলার কারণে নভেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক জাহাজ চলাচল ব্যাহত হয়েছে। অনেক জাহাজ লোহিত সাগরে হয়ে সুয়েজ খালের দিকে না গিয়ে আফ্রিকার দক্ষিণ প্রান্তের চারপাশে দীর্ঘ পথ বেচে নিতে বাধ্য হয়েছে।