মেসের কক্ষে ঝুলছিল বৈশাখীর মরদেহ

প্রকাশিত: ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৩১, ২০২৪

জেলা প্রতিনিধি,নাটোরঃ 

নাটোর শহরের উত্তর বড়গাছা এলাকার একটি ছাত্রী নিবাস থেকে নুসরাত জাহান বৈশাখী (১৮) নামে এক কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার রাত ১১টার দিকে হাফসা ছাত্রী নিবাস নামের ওই ছাত্রী নিবাসের তিন তলার একটি কক্ষ থেকে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। তৃতীয় তলার ওই কক্ষে তিনি একাই থাকতেন বলে জানান নিবাসের মালিক।

মৃত শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান বৈশাখী নাটোরের সিংড়া উপজেলার চামারী ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামের রফিকুল মৃধার মেয়ে। তিনি নবাব সিরাজ উদ দৌলা সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি জেলা ব্যাডমিন্টন দলের একজন খেলোয়াড়ও ছিলেন বলে জানা গেছে।পুলিশ জানায়, শহরের উত্তর বড়গাছা এলাকায় হাফসা ছাত্রী নিবাসের তিন তলার একটি কক্ষে ওই শিক্ষার্থী একাই থাকতেন। শনিবার সন্ধ্যার পর থেকে তার কক্ষের দরজা বন্ধ ছিল। কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে রাত ৯টার দিকে ওই কক্ষের দরজায় গিয়ে ডাকাডাকি করেন সহপাঠীরা। এরপরও তার সাড়াশব্দ না পেয়ে মেস সুপার বিষয়টি ছাত্রী নিবাসের মালিক পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান চুন্নুকে জানান।

হাবিবুর রহমান চুন্নু জানান, তাকে বিষয়টি অবগত করার সঙ্গে সঙ্গে তিনি নিবাসে আসেন এবং প্রথমে ওই শিক্ষার্থীর পরিবারকে জানান। এরপর তিনি নাটোর থানা পুলিশকে খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে আসেন। পরে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা দরজার লক ভেঙে মরদেহ উদ্ধার করেন।নাটোর সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কক্ষের দরজা বন্ধ থাকতে দেখেন। এরপর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সহযোগিতায় দরজা খোলা হয়। বৈশাখীর মরদেহ তার ওড়না দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল। ভেতর থেকে দরজা বন্ধ থাকায় প্রাথমিকভাবে এটি আত্মহত্যা মনে হচ্ছে।ওসি আরো জানান, নিহতের ব্যবহৃত ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। সেগুলো থেকে আত্মহত্যার কারণ জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য রাতেই সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।