মানসিক চাপ মোকাবিলায় উপকারী যেসব পানীয়

প্রকাশিত: ১২:১১ অপরাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২৪

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

মানসিক স্বাস্থ্য আমাদের সামগ্রিক সুস্থতার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। বিষন্নতা এবং উদ্বেগ মানসিক স্বাস্থ্যের উপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে। বিষন্নতা দূর করতে অনেকে চিকিৎসকের পরামর্শে নিয়মিত ওষুধ খান। দীর্ঘদিন ধরে টানা ওষুধ খেলে স্বাস্থ্যের উপর নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। কিছু কিছু পানীয় আছে যা প্রাকৃতিকভাবে বিষন্নতা দূর করতে তথা মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে ভূমিকা রাখে। যেমন-

  • ক্যামোমাইল চা: ক্যামোমাইল চা শান্ত বৈশিষ্ট্যের জন্য সুপরিচিত। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে। এর পাশাপাশি, এই চা ভালো ঘুমের জন্য সহায়ক যা মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য অপরিহার্য।
  • গ্রিন টি: গ্রিন টি এল-থেনাইন সমৃদ্ধ একটি অ্যামিনো অ্যাসিড যা তন্দ্রা সৃষ্টি না করেই মানসিক চাপ কমায়। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মস্তিষ্কের কার্যকারিতা উন্নত করতে এবং মেজাজ ভালো রাখতে সহায়তা করে।
  • হলুদের দুধ: হলুদের মধ্যে থাকা কারকিউমিন, শক্তিশালী অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্যযুক্ত একটি যৌগ। নিয়মিত হলুদ ধুধ পানে বিষন্নতা কমে।
  • ভেষজ চা: বিভিন্ন ধরনের ভেষজ চা মানসিক চাপ কমাতে, ঘুমের উন্নতি করতে এবং প্রশান্তির বোধ উন্নীত করতে সাহায্য করতে পারে।
  • মধুসহ হালকা গরম দুধ: গরম দুধ নিদ্রাহীনতা কমায়। সেই সঙ্গে উদ্বেগ কাটায়। এতে থাকা ট্রিপটোহান নামক অ্যামিনো অ্যাসিড সেরোটোনিন তৈরি করতে সাহায্য করে। এর ফলে মন শান্ত থাকে। হালকা গরম দুধে মধু যোগ করলে শুধুমাত্র স্বাদ বাড়ায় না, অতিরিক্ত অ্যান্টিঅক্সিডেন্টও সরবরাহ করে।