বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য ধ্বংস করলো চুয়াডাঙ্গা ৬ বিজিবি

প্রকাশিত: ৬:৪৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৪

জেলা প্রতিনিধি,চুয়াডাঙ্গাঃ 
বুধবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চুয়াডাঙ্গা-৬ ব্যাটালিয়নের সদর দপ্তরে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব মাদকদ্রব্য ধ্বংস করে বিজিবি।অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির পরিচালক ও অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সাঈদ মোহাম্মদ জাহিদুর রহমান। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজিবির কুষ্টিয়া সদর দপ্তরের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল এমারাত হোসেন।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল সাঈদ মোহাম্মদ জাহিদুর রহমান বলেন, চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। চোরাকারবারিরা সীমান্তের তারকাঁটা অতিক্রম করে যেন কোনোভাবেই বাংলাদেশে মাদক প্রবেশ করাতে না পারে সে বিষয়ে বিজিবির সৈনিকরা সর্বদা সতর্ক রয়েছেন। চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরের সীমান্তে বিজিবির জোর টহলের কারণে মাদক ও চোরাচালান অনেক কমেছে। আমরা শুন্যে আনার চেষ্টা করছি। এ ধারা অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ।

বিজিবি জানায়, পাঁচ হাজার ৮১৮ বোতল ফেনসিডিল, ১৩৫৯ বোতল মদ, দুই বোতল বেয়ার, ৫৮ কেজি ৬০০ গ্রাম গাঁজা, ৯ হাজার ৬৩৪ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, দুই হাজার ৫৮০ পিস নেশাজাতীয় ট্যাবলেট, দুই হাজার ১৯৮ পিস নেশাজাতীয় ইনজেকশন ও ১০ কেজি হেরোইন আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ও রুলার মেশিন দিয়ে বোতল ভেঙে ধ্বংস করা হয়।

২০২২ সালের ১ আগস্ট থেকে ২০২৩ সালের ৩১ জুলাই পর্যন্ত এক বছরে চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এ বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য জব্দ করে বিজিবি।মাদকদ্রব্য ধ্বংস অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রিপন হোসেন, বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর কাজী আসিফ আহমদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনিসুজ্জামান লালন, মেহেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহসান খান ও মেহেরপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক শিরিন আক্তার ও চুয়াডাঙ্গা ৬ বিজিবির সহকারী পরিচালক হায়দার আলী। এছাড়াও বিভিন্ন অসামরিক লোক, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সংবাদ কর্মীরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।