বিজেপিকে ৪৬০০ কোটি রুপি জরিমানা করা উচিত: কংগ্রেস

প্রকাশিত: ৫:৩৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৯, ২০২৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক রিপোর্টঃ  

ভারতের লোকসভা ভোটের আগে নতুন আয়কর দপ্তরের নোটিস পেয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ তুলল কংগ্রেস। শুক্রবার এআইসিসির কোষাধ্যক্ষ অজয় মাকেন সাংবাদিক বৈঠকে বললেন, ‘বিজেপি আয়কর আইনের গুরুতর লঙ্ঘন করেছে। ওদের কাছে ৪৬০০ কোটি রুপি জরিমানা চেয়ে আয়কর নোটিস পাঠানো উচিত।’

অজয়ের পাশাপাশি শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ভারতের সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জয়রাম রমেশ। তিনি জানান, তাদের কাছে ১৮২৩ কোটি ৮ লাখ রুপি চেয়ে নোটিস পাঠানো হয়েছে আয়কর দপ্তর থেকে। লোকসভা ভোটের আগে বিজেপি ‘কর সন্ত্রাস’ শুরু করেছে। ওরা বিরোধীদের আর্থিকভাবে পঙ্গু করতে চাইছে।

আয়কর দপ্ততরের একটি সূত্র জানাচ্ছে, ২০১৭-১৮ থেকে ২০২০-২১ অর্থবর্ষ পর্যন্ত আয়কর সংক্রান্ত রিটার্ন পর্যালোচনা করেই রাহুল গান্ধী-মল্লিকার্জুন খড়গের দলের কাছে টাকা চেয়ে নোটিস পাঠানো হয়েছে। বকেয়া কর, তার সুদ ও জরিমানার অঙ্ক মিলিয়েই ওই বিপুল অঙ্কের টাকা চাওয়া হয়েছে বলে ওই সূত্রের দাবি। আয়কর আইনের ১৩(১) ধারা লঙ্ঘনের প্রমাণ মেলার পরেই পদক্ষেপ করা হয়েছে।

গত ১৩ মার্চ আয়কর আপিল ট্রাইবুনালের নির্দেশের বিরুদ্ধে কংগ্রেসের আবেদন দিল্লি হাই কোর্ট খারিজ করার পরেই ধারাবাহিক ভাবে পদক্ষেপ শুরু করেছে আয়কর দপ্তর। ওই নির্দেশের পর কংগ্রেসের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে চলতি মাসে ১৩৫ কোটি টাকা কেটে নেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ।বৃহস্পতিবারও ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষের কর পুনর্মূল্যায়নের বিরুদ্ধে কংগ্রেসের একটি নতুন আবেদন দিল্লি হাই কোর্ট খারিজ করে দিয়েছিল। তার পরেই পাঠানো হল নতুন নোটিস। দু’টি ক্ষেত্রেই দিল্লি হাই কোর্টের বিচারপতি যশবন্ত বর্মার বেঞ্চ কংগ্রেসের আবেদন খারিজ করে।