বদরগঞ্জে অবৈধ দখলকারীদের হামলায় দুই বন কর্মকর্তা গুরুতর আহত

প্রকাশিত: ১:২৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২৪

রংপুর প্রতিনিধি:

রংপুরের বদরগঞ্জে অবৈধ দখলকারীদের হামলায় আহত মিঠাপুকুর রেঞ্জ কর্মকর্তা সহ দুই বন কর্মকর্তা বনবিভাগের জমি উদ্ধার করতে গিয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন। শুক্রবার (২৭ জুন) বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ওসমানপুর খৈদাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
আহত কর্মকর্তাদের বদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।এ ঘটনায় শুক্রবার বদরগঞ্জ উপজেলার লোহানীপাড়া বন বিট কর্মকর্তা মোর্শেদ আলম বাদী হয়ে শাখাওয়াত হোসেন নামের এক ব্যক্তিকে প্রধান আসামি করে বদরগঞ্জ থানায় মামলাদিয়েছেন। মামলায় হামলাকারী হিসেবে মোট পাঁচজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত শাখাওয়াত হোসেন সহ সকলে পলাতক রয়েছেন বলে থানা সুত্রে জানা গেছে।
লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০২১-২২ অর্থবছরে বদরগঞ্জের লোহানীপাড়া বন বিটের আওতায় বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ওসমানপুর খৈদাপাড়া এলাকায় সরকারি পাঁচ হেক্টর জমিতে সামাজিক বন বিভাগ গাছ লাগায়। এর সপ্তাহ খানেক পরে এই জমি নিজেদের দাবি করে শাখাওয়াত হোসেনসহ কয়েক ব্যক্তি রাতে গাছগুলো উপড়ে সেখানে আমের চারা রোপণ করেন। এ কারণে বন বিভাগের পক্ষ থেকে ওই জমি পুনরুদ্ধারে বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বিকেলে এলাকায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন সামাজিক বন বিভাগ রংপুরের মিঠাপুকুর রেঞ্জ কর্মকর্তা রুহুল আমিন। তার সঙ্গে ছিলেন আরেক রেঞ্জ কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন, বিট কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম, লোহানীপাড়া বনবিট কর্মকর্তা মোর্শেদ আলম, বাংলো চৌকিদার কামরুজ্জমান ও নূর আলম।এ সময় কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে শাখাওয়াত হোসেনের নেতৃত্বে কয়েকজন ধারালো অস্ত্র ও লাঠি হাতে বন কর্মকর্তাদের ওপর হামলা চালায়। এসময় অস্ত্রের আঘাতে রেঞ্জ কর্মকর্তা রুহুল আমিন ও বিট কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন সেখান থেকে তাদের দুজনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান কবীর জানান, অভিযোগ পেয়েছি।তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
রংপুর বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোল্লা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, মিঠাপুকুর রেঞ্জ কর্মকর্তা ও মিঠাপুকুর বন বিট কর্মকর্তা বদরগঞ্জে বন বিভাগের বেদখল জমি দখল করতে গিয়ে স্থানীয় কয়েকজন প্রতাব শালীর হামলায় আহত হয়েছেন। হামলাকারী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দেওয়া হয়েছে।