পাকিস্তানে বাবা-মায়ের সামনে বোনকে নির্মমভাবে হত্যা করল ভাই

প্রকাশিত: ১২:০২ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক রিপোর্টঃ 

কথিত অনার কিলিংয়ের বিরুদ্ধে পাকিস্তানে প্রায়ই নারীরা বিক্ষোভ করেন। তবে কিছুতেই এই হত্যাকাণ্ড থামানো যাচ্ছে না।
পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের তোবা তেক সিং শহরে বাবা-মায়ের সামনেই নিজের বোনকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে ভাই। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৭ মার্চ। এই নির্মম হত্যাকাণ্ডের ভিডিও করে ওই তরুণীর আরেক বড় ভাই।

ভিডিওটি সে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করে। এরপর এটি ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিও করা সেই ভাইকে রোববার (৩১ মার্চ) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, মারিয়া বিবি নামের ২২ বছর বয়সী ওই তরুণীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করছে তার ভাই ফয়সাল। ওই সময় তার বাবা পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন। আর ভিডিও করছিলেন শেহবাজ।

ভিডিওটির এক পর্যায়ে শেহবাজকে বলতে শোনা যায় “বাবা, তাকে ছাড়তে বলুন।” তবে শেহবাজকে ধমক দিয়ে থামিয়ে দেওয়া হয়। এরপর আরও দুই মিনিটের মতো ওই তরুণীর নিথর দেহকে চেপে ধরে রাখে তার ভাই।যখন মৃত্যু নিশ্চিত হয় তখন তার বাবা হত্যাকারী ফয়সালকে পানি খেতে দেয়।ঘটনা জানাজানি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তরুণীর বাবা সাত্তার ও হত্যাকারী ভাই ফয়সালকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর শনিবার গ্রেপ্তার হয় শেহবাজ।

পুলিশ জানিয়েছে, তরুণীটির বড় ভাই ফয়সাল তাকে কয়েকবার এক অপরিচিত ব্যক্তির সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলতে দেখে। এতে তার পুরো পরিবার ক্ষিপ্ত হয়।পাকিস্তানে পরিবারের সম্মান রক্ষার্থে নারী সদস্যদের অহরহ হত্যার ঘটনা ঘটে থাকে। যা ‘অনার কিলিং’ নামে পরিচিত।এত নির্মম হত্যাকাণ্ড ঘটালেও পাকিস্তানের আইন অনুযায়ী, ওই তরুণীর পরিবারের কোনো সদস্যরই কঠিন বিচার হবে না।