দর্শকের গ্রহণযোগ্যতার কথা ভেবে কাজ করছি: তৌসিফ

প্রকাশিত: ৫:৩১ অপরাহ্ণ, জুন ২৭, ২০২৪

বিনোদন ডেস্ক:

ছোটপর্দার অভিনেতা তৌসিফ মাহবুব। বছর দুয়েক আগেও ঈদে সংখ্যার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নাটকে অভিনয় করতেন। এমনও ঈদ গেছে যেখানে প্রায় ৫০টি নাটকেও অভিনয় করেছেন তিনি। সেটা এখন অতীত। এখন তিনি মনোযোগ দিয়েছেন মান ও বিশেষ বার্তাসম্পন্ন নাটকে। ফলে নাটকের সংখ্যা নেমে এসেছে পাঁচের ঘরে। এবার ঈদে মাত্র ৮টি নাটকে দেখা গেছে তাকে। যার সবগুলোই বিশেষ বার্তাসম্পন্ন। সেই সঙ্গে পেয়েছে দর্শকের প্রশংসা।

তৌসিফ মাহবুব সমকালকে জানান, সংখ্যার চেয়ে মানের কথা চিন্তা করে নাটকের এবার ৮টি নাটক করেছি। সময় নিয়ে কাজগুলো করেছি। আগে দুই-একদিনে একটা নাটক শেষ করতাম। এখন একটা নাটকের জন্য ১০ থেকে ১২ দিনও সময় দিচ্ছি। ফলে প্রায় সবগুলো কাজই দর্শকের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছে। সেই সঙ্গে ভিউয়ের দিকে থেকেও বেশ ভালো।’
এবার ঈদে ‘সামার ব্রেক’, ‘চাঁদের হাট’, ‘লাভ রেইন’, ‘নয়নতারা’, ‘শুরুর দিনগুলি’, ‘সেই সব মানুষ ও মাছের গল্প’, ‘যেখানে প্রেম নেই’ ও ‘হাজত’ নাটকে অভিনয় করেছেন তৌসিফ। এর মধ্যে ইউটিউবে ট্রেন্ডিংয়ে বাংলাদেশে ১ নম্বরে ছিল ‘চাঁদের হাট’। সব শেষে ১৮ জুন আসছে তার ঈদের শেষ নাটক ‘রূপকথা’।

তৌসিফ জানান, সত্যি কথা বলতে, ‘রূপকথা’ নাটকটি এবার ঈদের আমার সবচেয়ে ভালো কাজ। অনেক কষ্ট করে কাজটি করেছি। এখানে আমার সঙ্গে আছেন কেয়া পায়েল। দুজনের কম্বিনেশনটাও ভালো ছিল। অন্যসব নাটকের মত এই নাটকটিও দর্শক সাদরে গ্রহণ করবে।

তৌসিফের ভাষ্য, অনেক কষ্ট করে আমরা একটি কাজ করি। ভক্ত-দর্শকও সেখানে সময় নষ্ট করে দেখে। অভিনয়শিল্পী হিসেবে সেখানে আমাদেরও কিছু দায়বদ্ধতা থাকে। এতো কষ্ট করে কাজ করার পর দর্শক যদি কিছু না পায় সেখানে আমাদের সার্থকতা থাকে না। তাই দর্শকের গ্রহণযোগ্যতার কথা মাথায় রেখে কাজ করছি। যে গল্পে দর্শকের জন্য কোনো বার্তা নেই সে গল্পে কাজ করতে চাই না।

নাটকের পাশাপাশি ওটিটিতে কাজ নিয়ে নিজের ভাবনার কথাও জানাও এই অভিনেতা। তার কথায়, ওটিটির কাজ অনেক সাজানো গোছানো ও বড় মাপের। তাই এই প্ল্যাটফর্মের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করছি।