তেলের ঋণ চা-পাতা দিয়ে শোধ করলো শ্রীলঙ্কা

প্রকাশিত: ২:০১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক রিপোর্টঃ 

ইরানের কাছে শ্রীলঙ্কার ২৫১ মিলিয়ন ডলারের ঋণ রয়েছে। বুধবার চা-পাতার মাধ্যমে এই ঋণের ২০ মিলিয়ন ডলার শোধ করেছে শ্রীলঙ্কা। এই বিনিময়ে তেহরানের সফররত পররাষ্ট্রমন্ত্রী সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন বলে জানায় কলম্বো। খবর এএফপি’র।

ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দোলাহিয়ানের সাথে বৈঠক শেষে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী দীনেশ গুনাবর্ধনের অফিস থেকে ইস্যুকৃত এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘বিনিময় চুক্তির আওতায় ২০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের চা-পাতা ইরানে রপ্তানি করা হয়েছে।’

তেলের বদলে চা-পাতা বিনিময়ের এই চুক্তি হয় ২০২১ সালের ডিসেম্বরেই, কিন্তু শ্রীলঙ্কায় তৎকালীন অর্থনৈতিক সংকটের কারণে রপ্তানি পিছিয়ে গিয়েছিল।পাশ্চাত্যের বিভিন্ন দেশ ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, ফলে ইরান সহজে বৈদেশিক মুদ্রা খরচ করতে চাইছে না। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক সংকট পুরোপুরি কাটেনি বলে তাদের বৈদেশিক মুদ্রায় ঘাটতি আছে। এই বিনিময়ের ফলে দুই দেশই উপকৃত হচ্ছে – ইরানকে বৈদেশিক মুদ্রা খরচ করে চা-পাতা কিনতে হচ্ছে না, আবার শ্রীলঙ্কাকেও তেল কিনতে গিয়ে রিজার্ভে হাত দিতে হচ্ছে না।এক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য যে, শ্রীলঙ্কার সিলন চা ইরানে খুবই জনপ্রিয়। ইরানে বছরে যে পরিমাণ চা পান করা হয় তার প্রায় অর্ধেকই সিলন চা।