আগামী ১৬ দিন বিকল্প পথে চলতে হবে মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে ব্যবহারকারীদের

প্রকাশিত: ১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪

আফরিন আক্তারঃ 

কার্যক্ষমতা বাড়াতে দুই সপ্তাহের জন্য পোস্তগোলা সেতু সংস্কার কাজ শুরু করেছে সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদপ্তর। ফলে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে ব্যবহাকারী যানবাহনগুলোকে আজ বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) থেকে ৮ মার্চ পর্যন্ত বিকল্প পথ ব্যবহার করতে বলেছে সওজ।এই সময়টাতে মহাসড়কে চলাচলকারী যানবাহনগুলোকে বিকল্প সড়ক ব্যবহার করতে বলেছে সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদপ্তর। এরইমধ্যে এ বিষয়ে অধিদপ্তরের ঢাকা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীর কার্যালয় থেকে একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

সওজের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. সবুজ উদ্দিন খান সই করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান (এন-৮: ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ে) মহাসড়কের তৃতীয় কিলোমিটারে অবস্থিত বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী বুড়িগঙ্গা সেতু-১ এর (পোস্তগোলা সেতু) দুটি গার্ডারের মেরামত ও রেট্রোফিটিং কাজ করা হবে।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, এই মেরামত কাজের জন্য আগে ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ৬ মার্চ তারিখ নির্ধারণ করা হলেও এসএসসি পরীক্ষার জন্য তা পরিবর্তন করা হয়। নতুন নির্ধারিত ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চ পর্যন্ত সময়ে সেতুটি দিয়ে ট্রাক-পিকআপ ভ্যান, কাভার্ডভ্যান, কনটেইনারবাহী লরিসহ সবধরনের ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। আর ২৪ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি এবং ১, ৪ ও ৮ মার্চ- এই পাঁচ দিন বাস, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার, সিএনজি, অটোরিকশাসহ সবধরনের হালকা যানবাহন চলাচলও বন্ধ থাকবে। এই পাঁচ দিন সবাইকে বিকল্প সড়ক ব্যবহারের অনুরোধ করা হয়েছে।

ভারী যানবাহন ও বড় বাসের জন্য বিকল্প সড়কের নির্দেশনাও দিয়েছে সওজ। এতে বলা হয়েছে, যাত্রাবাড়ী থেকে ছেড়ে আসা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মহাসড়কগামী যানবাহন ধোলাইপাড় বাসস্ট্যান্ড ও বাবুবাজার সেতু ব্যবহার করে তেঘড়িয়া ইন্টারসেকশন হয়ে মহাসড়কে প্রবেশ করবে। আর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মহাসড়ক হতে যাত্রাবাড়ীগামী যানবাহন তেঘড়িয়া ইন্টারসেকশন-বাবুবাজার সেতু ব্যবহার করে ধোলাইপাড় হয়ে যাত্রাবাড়ী প্রবেশ করবে।