অবৈধ অভিবাসী নিয়ে কঠোর হচ্ছে বাইডেন প্রশাসন

প্রকাশিত: ১:৫৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক রিপোর্টঃ 

অবৈধ অভিবাসন ইস্যুতে আরও কঠোর হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নেতৃত্বাধীন প্রশাসন। জানা যায় আগামী নির্বাচনে তরুণ ভোটারদের ভোট পেতে এবং অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে ডেমোক্রেটিক পার্টির অবস্থান আরও শক্ত করতে বাইডেন প্রশাসনের এ পরিকল্পনা।মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গকে বাইডেন প্রশাসনের একাধিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রে অবৈধ অভিবাসন নিয়ন্ত্রণ ও দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে মেক্সিকো সীমান্ত পথ দিয়ে অভিবাসন প্রত্যাশীদের জোয়ার বন্ধ করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়ার পরিকল্পনা প্রায় চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে; শিগগিরই এসব বাস্তবায়ন করা হবে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বাইডেনের পূর্বসূর‌ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে অবৈধ অভিবাসন নিয়ন্ত্রণ করতে মার্কিন সংবিধানে ২১২ (এফ) নামের একটি ধারা যুক্ত করা হয়েছিল। সেসময় অবশ্য এই ধারাটির কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল ট্রাম্পের দল রিপাবলিকান পার্টির মধ্যেই। ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেন জয়ী হওয়ার পর গত প্রায় সাড়ে তিন বছরে কোনো আলোচনার মধ্যে ছিল না সেই ধারাটি।

বর্তমানে সেই ধারাটিকে ফের পুনরুজ্জীবিত করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বাইডেন প্রশাসনের এক কর্মকর্তা।রাজনৈতিক মতাদর্শগতভাবে অভিবাসন ইস্যুতে বাইডেনের রাজনৈতিক দল ডেমোক্রেটিক পার্টি রিপাবলিকান পার্টির চেয়ে অনেক উদার। কিন্তু দেশটির অভ্যন্তরীণ রাজনীতির কারণে এ ইস্যুতে তাদের কঠোর হতে হচ্ছে।

এছাড়া সাম্প্রতিক একাধিক জরিপে দেখা গিয়েছে যে মার্কিন তরুণ ভোটারদের বড় অংশই অভিবাসন ও অভিবাসীবিরোধী। চলতি বছর নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হবে। মার্কিন রাজনীতি বিশ্লেষকদের মতে, যদি বাইডেন অভিবাসন ইস্যুতে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ না করেন— তাহলে আগামী নির্বাচনে তার জয়ের সম্ভাবনা অনেক কমে যাবে; কারণ সেক্ষেত্রে তরুণ ভোটারদের অধিকাংশ ভোট চলে যাবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঝুলিতে।